ক্যান্সার থেকে বাঁচতে করণীয়

প্রযুক্তির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানও দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে। আবিষ্কার হচ্ছে নতুন নতুন যন্ত্রপাতি ও চিকিৎসা পদ্ধতির। এত সব সত্ত্বেও মারণব্যাধী ক্যান্সারের কোনো চিকিৎসা এখনো আবিষ্কার হয়নি। তবে এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী গবেষণা অব্যাহত আছে। যাহোক, জীবনযাপন পদ্ধতিতে পরিবর্তন এনে ক্যান্সারের মতো ভয়ানক ব্যাধি প্রতিরোধ করা সম্ভব বলে বিশেষজ্ঞদের মত।

‘জামা অনকোলজি’ নামের জার্নালে সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিদিনের খাদ্যাভাস এবং ব্যায়ামের মাধ্যমে ক্যান্সার প্রতিরোধ করা সম্ভব।

‘সুস্থ জীবনধারার নমুনা’ শীর্ষক গবেষণাটি চালায় যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হাসপাতাল, হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুল এবং মার্কিন জনস্বাস্থ্য হার্ভার্ড টিএইচ চ্যান স্কুল। গবেষকরদের দাবি, জীবনধারায় কিছু পরিবর্তন করা হলে ৪০ শতাংশ ক্যান্সার প্রতিরোধ সম্ভব।

গবেষণা প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়, ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়া মানুষের মধ্যে যুক্তরাজ্যের শেতাঙ্গদের সংখ্যা অনেক কম। শুধু খাদ্যাভ্যাসের কারণেই এই মরণব্যাধী থেকে নিজেদের দূরে রাখেন তারা।

গবেষকরা জানান, ৮৯ হাজার ৫৭১ জন নারী এবং ৪৬ হাজার ৩৯৯ পুরুষের ওপর গবেষণাটি চালানো হয়। এতে দেখা গেছে, ৭৩ হাজার ৪০ জন নারী এবং ৩৪ হাজার ৬০৮ পুরুষ ক্যান্সার আক্রান্তের ঝুঁকিতে রয়েছেন। অর্থাৎ প্রায় ১৯ শতাংশ নারী এবং মাত্র ৪ শতাংশ পুরুষ ক্যান্সারের ঝুঁকিমুক্ত; খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের কারণেই

তারা আরও জানান, ওষুধের পরিবর্তে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস এবং নিয়মিত ব্যায়াম করলে ক্যান্সার আক্রান্তের ঝুঁকি ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়। ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ করতে প্রাথমিক প্রতিরোধ হিসেবে সুস্থ জীবনধারার বিষয়গুলোকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত বলে মনে করেন গবেষকরা। বিডি-প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *