ফেসবুকে দুঃখপ্রকাশ অরিজিত্‍ সিং-এর তাও মন গলল না ভাইজানের

আবার ছবি থেকে অরিজিত্‍ সিং-এর গাওয়া গান ফেলে দিলেন সলমন খান। এবার সুলতান ছবি থেকে ফেলে দেওয়া হল তাঁর গান। গতকাল রাতে তুমুল ঝামেলার পর আদিত্য চোপড়ার হস্তক্ষেপে অরিজিত্‍ তাঁর নিজের ফেসবুকের পাতায় দুঃখপ্রকাশ করে খোলা চিঠি লেখেন সলমনকে। কিন্তু তাতে মন গলেনি ভাইজানের। নতুনভাবে গানটি গাইতে পারেন রহত ফতে আলি খান আথবা শফকত আমানত আলি খান।

ঝামেলাটা পুরনো। ২০১৪-র স্টার গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস। সাদামাটাভাবে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে য়াওযার জন্য মঞ্চে দাঁড়িয়ে অরিজিতের সঙ্গে মজা করেছিলেন সলমন। প্রত্যুত্তরে অরিজিত্‍ও মুখের উপর জবাব দিয়েছিলেন, “অনেকক্ষণ ধরে অপেক্ষা করছি, অ্যাওয়ার্ড দেওয়ার হলে দিয়ে দিন।’ সেটাই মেনে নিতে পারেননি বলিউডের সুপারস্টার। এরপর কিক ফিল্ম থেকে বাদ পড়ে অরিজিতের গাওয়া হ্যাংওভার গানটি। পরে গানটি নিজেই ডাব করেন সলমন। এবার সুলতান ছবির জন্য সঙ্গীত পরিচালক বিশাল-শেখর একটা গান রেকর্ড করেন অরিজিত্‍কে দিয়ে। গতকাল রাতে সলমন বেঁকে বসেন, গানটা অন্য কাউকে দিয়ে গাওয়াতে হবে এই দাবি নিয়ে।

আদিত্য চোপড়ার হস্তক্ষেপেও সমস্যা না মেটায় সলমনকে খোলা চিঠি লেখেন অরিজিত্‍।

প্রিয় মিস্টার সলমন খান,
আমার মনে হয়, অপনার সঙ্গে কথা বলার এটাই একমাত্র উপায়। আমি আপনাকে অনেকবার দুঃখপ্রকাশ করে এসএমএস পাঠিয়েছি। সেদিন যা ঘটেছিল, তা ছিল ভুল সময় এবং ভুল ব্যঞ্জনা। আপনাকে অসম্মান করার কোনও ইচ্ছেই আমার ছিল না। তবু যদি আপনার খারাপ লেগে থাকে তাহলে আমি আবারও দুঃখিত। আমি ও আমার গোটা পরিবার আপনার ফ্যান। এতবার দুঃথপ্রকাশ করার পরেও আপনি বুঝতে পারলেন না!

নীতা আম্বানির বাড়িতেও আমি এই নিয়েই কথা বলতে গিয়েছিলাম, আপনি শুনতে চাননি। আমার অনুরোধ, সুলতানের জন্য আমি যে গানটি গেয়েছি, দয়া করে সেটা সরাবেন না। আপনি যদি চান আপনার লিপে অন্য কেউ গানটি গাক, তাহলেও অন্তত আমার গাওয়া ভার্সানটি রাখবেন। আমি এরমধ্যেই যথেষ্ট গান গেয়েছি স্যার, কিম্তু অবসর নেওয়ার আগে অন্তত আপনার ছবির একটা গান আমার লাইব্রেরিতে রাখতে চাই। শুভেচ্ছায় অরিজিত্‍ সিং সূত্রের খবর,এরপরেও মন গলেনি সলমন খানের। অরিজিতের গাওয়া গানটি গাইতে চলেছেন রহত ফতে আলি খান অথবা শফকত আমানত আলি খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *