মানুষ বিয়ে করে কেন ?

মানুষের জীবনে বিয়ে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়, যার প্রভাবে জীবন অনেকটাই বদলে যায়। কিন্তু মানুষ কেন বিয়ে করে? চমকপ্রদ কিছু কারণ জেনে নিন।

* বাবা-মায়ের চমকপ্রদ ভাবনা মেনে বিয়ে করতে হয়। কারণ তাদের মতে, বিয়ের ফলে জীবনের সমস্ত সমস্যা দূর হয়। ছেলে রাত করে বাড়ি ফিরছে? কারোর কথা শুনছে না। বিয়ে দিয়ে দাও… মেয়ের কারোর সঙ্গে চক্কর চলছে, বিয়ে দিয়ে দাও।

* শারীরিক চাহিদা পূরণে বিয়ে করতে হয়। কারণ এমনি এমনি তো আর সমাজ মেনে নেবে না। তাই এক্ষেত্রে বিয়েটা বাধ্যতামূলক।

* যৌতুক নেওয়া বা দেওয়া দণ্ডণীয় অপরাধ জেনেও অনেকে এই প্রথায় বিশ্বাসী। ফলে মেয়ের বাড়ি থেকে মোটা যৌতুকের লোভেও বিয়ের পিঁড়িতে বসে অর্থলোভী পাত্র।

* শেষ বয়সে কে দেখবে, এই ভয় থেকে বিয়ে করে।

* অনেক সময় বিয়েকে জীবনের লক্ষ্য বানিয়ে দেওয়া হয়। যেমন: ছেলেদের বেলা থেকে বলা হয়, ভালো রোজগার না করলে কোনো মেয়ে বিয়ে করতে চাইবে না। মেয়েদের এই ট্রেনিং দিয়েই বড় করা হয়, সুশীলা না হলে কোনো ছেলে বিয়ে করতে চাইবে না। তাই লক্ষ্য পূরণে…।

* অনেকে বাবা-মা কিংবা মৃত্যু পথযাত্রী নানী-দাদীর আবদারে বিয়ে করে। কারণ ছেলে/মেয়ের কিংবা নাতি/নাতনির বিয়েটা তারা দেখে যেতে চান, বলেই বিয়ে করা।

* বংশ বৃদ্ধির জন্য বিয়ে করা হয়।

* সম্পর্ককে আরো বেশি সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে বিয়ে। তাই বিয়ে করা হয়।

* বিয়ের ফলে মানুষের স্বাস্থ্যগত অনেক সুফল মেলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *