সই দেখে বুঝা যায় মানুষের স্বভাব চরিত্র

সাদা পাতায় দরখাস্ত থেকে ফর্ম ফিলআপ, যখনই প্রয়োজন আমরা খসখস করে সই করে ফেলি। কিন্তু, এই সই করার ধরন এক-একজন মানুষের এক-একরকম। আর এই সই ধরন দেখেই বুঝে ফেলা যায় মানুষটিকে। কীরকম?

১) কারোর কারোর সই হয় ছোট, পাতার এককোণায় জড়সড় হয়ে থাকে যেন। আর কারোর কারোর সই মোটা, সারা পাতা জুড়ে। সাধারণত যাঁরা নিজেদের থেকে একটু আলাদা করে ভাবেন, নিজেকে বড় করে দেখতে ভালোবাসেন, তাঁরা একটু বড় হরফে সই করতে পছন্দ করেন।

২) আবার যাঁরা খুব সংক্ষেপে সই করেন, তাঁদের নিজেদের সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসটা একটু কম। এঁরা অন্যদের নজর থেকে নিজেদের আড়াল করতে চান।

৩) কেউ কেউ আবার সই করে নীচে দাগ কাটেন। কেন? এঁরা আত্মবিশ্বাসে ভরপুর। রোজকার জীবনে চ্যালেঞ্জ নিতে এঁরা পিছপা হন না।

৪) অনেকে আবার সই করে ফুলস্টপ (.) দেন। এঁরা কী বলছেন, কী করছেন, এই ব্যাপারে অত্যন্ত সজাগ। সহজে কাউকে বিশ্বাস করেন না।

৫) আর যাঁদের এমনি হাতের লেখা ও সইয়ে সেরকম কোনও ফারাক নেই, তাঁরা মানুষটা খাঁটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *